ভারতে ২৯টি প্রদেশ। ২০১৪ সালের সর্বশেষ জাতীয় নির্বাচনে কংগ্রেস ৫৪৩টি আসনের মধ্যে মাত্র ৪৪টি পায়। অর্থাৎ রাজ্যপ্রতি গড়ে দুটি আসনও পায়নি তারা। দলটির নির্বাচনী ইতিহাসে সবচেয়ে খারাপ ফল এটা। আবার গত নির্বাচনে লজ্জাজনক ফলের মধ্যে এও ভুলে যাওয়ার সুযোগ নেই, দলটি অন্তত ২৬৮টি আসনে প্রথম বা দ্বিতীয় ছিল। অর্থাৎ ভারতের শতকরা প্রায় ৫০ ভাগ নির্বাচনী আসনে কংগ্রেস এখনো প্রধান এক প্রতিদ্বন্দ্বী। এখনো সর্বভারতীয় দল বলতে তারা এবং বিজেপি। ২৯ প্রদেশের ভারতে অন্তত ১০টি রাজ্যে বিজেপির সঙ্গে নিশ্চিতভাবেই ব্যাপক প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলবে কংগ্রেস। এগুলো হলো আসাম, ছত্তিশগড়, গুজরাট, হরিয়ানা, কর্ণাটক, কেরালা, মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, রাজস্থান ও পাঞ্জাব। এই ১০ প্রদেশে রয়েছে লোকসভার ২২৪ আসন। এগুলোর মধ্যে গতবার কংগ্রেস মাত্র ২৯টি পায় এবং ১৫৪টিতে দ্বিতীয় হয়।

ভারতে ২৯টি প্রদেশ। ২০১৪ সালের সর্বশেষ জাতীয় নির্বাচনে কংগ্রেস ৫৪৩টি আসনের মধ্যে মাত্র ৪৪টি পায়। অর্থাৎ রাজ্যপ্রতি গড়ে দুটি আসনও পায়নি তারা। দলটির নির্বাচনী ইতিহাসে সবচেয়ে খারাপ ফল এটা। আবার গত নির্বাচনে লজ্জাজনক ফলের মধ্যে এও ভুলে যাওয়ার সুযোগ নেই, দলটি অন্তত ২৬৮টি আসনে প্রথম বা দ্বিতীয় ছিল। অর্থাৎ ভারতের শতকরা প্রায় ৫০ ভাগ নির্বাচনী আসনে কংগ্রেস এখনো প্রধান এক প্রতিদ্বন্দ্বী। এখনো সর্বভারতীয় দল বলতে তারা এবং বিজেপি। ২৯ প্রদেশের ভারতে অন্তত ১০টি রাজ্যে বিজেপির সঙ্গে নিশ্চিতভাবেই ব্যাপক প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলবে কংগ্রেস। এগুলো হলো আসাম, ছত্তিশগড়, গুজরাট, হরিয়ানা, কর্ণাটক, কেরালা, মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, রাজস্থান ও পাঞ্জাব। এই ১০ প্রদেশে রয়েছে লোকসভার ২২৪ আসন। এগুলোর মধ্যে গতবার কংগ্রেস মাত্র ২৯টি পায় এবং ১৫৪টিতে দ্বিতীয় হয়।